প্রচন্ড শীতে রাজগঞ্জে ইরি-বোরো বীজতলা নষ্ট : ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক

22

হেলাল উদ্দিন, রাজগঞ্জ (যশোর) প্রতিনিধি : উপজেলার পশ্চিম মণিরামপুরের বিভিন্ন এলাকায় ইরি-বোরো ধানের বীজতলা নষ্ট হয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে৷ এতে বহু কৃষি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷
সরেজমিনে দেখা গেছে, পশ্চিম মণিরামপুর তথা রাজগঞ্জ অঞ্চলের ঝাঁপা, চালুয়াহাটী, মশ্বিমনগর, রোহিতা, খেদাপাড়া ও হরিহরনগর এই ৬টি ইউনিয়নে ১৫/২০ দিন আগে যে কৃষকেরা ধান বপন করেছিল তাদের বেশির ভাগ বীজতলা নষ্ট হয়ে গেছে এবং যাচ্ছে৷
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বলছেন, অতিরিক্ত ঠান্ডার কারণে ইরি-বোরোর বীজতলা নষ্ট হতে পারে৷ ইউনিয়ন ভিক্তিক উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা মাঠে মাঠে যেয়ে কৃষকদের বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছেন বীজতলা রক্ষার জন্য৷
রাজগঞ্জের ঝাঁপা গ্রামের কৃষক সাহেব আলী, হানুয়ার গ্রামের মফিজুর রহমানসহ এলাকার অনেক কৃষক জানিয়েছেন, বিগত বছরগুলো থেকে এবছর চড়া দামে ধানের বীজ কিনে বপন করার পর বীজতলা নষ্ট হয়ে গেছে৷ এতে অনেক ক্ষতিগ্রস্ত আমরা৷ এখন নিরুপায় হয়ে চড়া দামে চারা কিনে রোপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন অনেকেই৷ চড়া দামের পরেও দুষ্প্রাপ্য হয়ে পড়েছে ধানের চারা৷
এখানেই শেষ না, কৃষকেরা আরো আতংকে রয়েছেন যে, আমনের মত ধানের দাম হলে সেখানে দ্বিতীয় দফায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার৷
ঠান্ডার পাশাপাশি বিভিন্ন নামিদামি কোম্পানীর প্যাকেটে ভরা বীজ কিনেও বপন করে প্রতারিত হয়েছেন কৃষকেরা৷