‘মেসি জানে তার জন্য ব্যালন ডি’অর অপেক্ষা করছে’

9
মেসির, মরিনহো

সোনালী দিন ডেস্ক : বয়স যত বাড়ছে, লিওনেল মেসি যেন আরও পরিণত হচ্ছেন। অথচ ৩১ বছর বয়সে অনেক ফুটবলার তাদের শেষ দেখে ফেলে। এই মৌসুমে মেসি বার্সেলোনার হয়ে সকল প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪২ ম্যাচে ৪৫টি গোল করেছেন। যা ইউরোপিয়ান ফুটবলে সর্বোচ্চ।

বর্তমান সময়ে মেসির সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী মানা হয় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে। তবে ইতালিয়ান লিগে তার দল জুভেন্টাস দাপট দেখালেও, চ্যাম্পিয়নস লিগের মতো বড় আসরে ছিটকে পড়েছে। আর সিআর সেভেনের চলে যাওয়া মানে, মেসি বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার ব্যালন ডি’অরে এগিয়ে গেছেন বলে মনে করেন হোসে মরিনহো।

চলমান মৌসুমে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বাজে পারফরম্যান্সের কারণে বরখাস্ত হয়েছিলেন কোচ মরিনহো। তাকে সরিয়ে দেওয়ার পর নতুন কোচ ওলে গুনার সুলশারের অধীনে ভালো করে রেড ডেভিলসরা। কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসিই জোড়া গোল করে ম্যানইউকে বিদায় করে দেন।

রাশিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে মরিনহো বলেন, ‘মেসির পজিসন আন্দাজ করাটা সহজ। তবে তাকে আটকে রাখাটা বেশ কঠিন।’

‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড প্রথম লেগে রক্ষণে দারুণ করেছে। তবে আমার মনে হয় দ্বিতীয় লেগে তারা ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করেছে। রক্ষণের শুরুতে তারা শুধু ফ্রেডকে রেখেছে এবং ঐ জায়গাতেই মেসি আক্রমণ করে।’

‘সত্যি বলতে যখন মেসির কাছে ওয়ান-অন-ওয়ান বল থাকে, তখন তুমি শেষ। মেসির চারপাশে খাঁচার মতো তৈরি করতে হবে।’

রোনালদো চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে পড়ায় ব্যালন ডি’অর যে এখন শুধুই মেসির, সেই ইঙ্গিতই দিলেন মরিনহো, ‘মেসি এই মৌসুমে বিস্ময় দিয়েই যাচ্ছে। যেখানে রোনালদো লড়াই থেকে ছিটকে পড়েছে। মেসি এখন জানে ব্যালন ডি’অর তার জন্য অপেক্ষা করছে।’

এদিকে ইউরোপিয়ান সর্বোচ্চ আসরের সেমিফাইনালে বার্সেলোনা মোকাবেলা করবে আরকে ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলের। এই ম্যাচে ভবিষ্যত কী? জানতে চাওয়া হলে স্পেশাল ওয়ান খ্যাত মরিনহো বলেন, ‘আমি লিভারপুল থেকে বার্সাকে কিছুটা এগিয়ে রাখবো। তবে আমি এও মনেকরি ম্যাচটি ৫০-৫০ হতে পারে।’